• শনিবার ২৩শে জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ ৯ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

    শিরোনাম

    স্বপ্নচাষ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করতে ক্লিক করুন  

    সড়কে সন্তান প্রসব, হাসপাতালে নিয়ে গেল পুলিশ

    স্বপ্নচাষ ডেস্ক

    ০৮ মে ২০২০ ৯:৩৩ অপরাহ্ণ

    সড়কে সন্তান প্রসব, হাসপাতালে নিয়ে গেল পুলিশ

    সংগৃহীত ছবি

    বাগেরহাটে ক্লিনিকে নেওয়ার পথে সড়কে ভ্যানের ওপরই নিপা মন্ডল নামের এক নারী সন্তান প্রসব করেছেন। শুক্রবার ভোরে বাগেরহাট শহরের পৌরসভা সড়কের অসীম সাহার ভাড়াটিয়া ওই নারী ক্লিনিকে যাওয়ার পথে ভ্যানের ওপর কন্যা সন্তান প্রসব করেন। পরে স্থানীয় এক ব্যক্তি ৯৯৯ এ ফোন দিলে বাগেরহাট সদর থানা পুলিশ এসে ওই নারীকে মুক্তি ক্লিনিকে ভর্তি করেন। মা ও শিশু বর্তমানে সুস্থ্য রয়েছে বলে জানিয়েছেন ক্লিনিকের পরিচালক ডা. এস কে কাইয়ুম।

    প্রসূতি নিপা মন্ডল মোরেলগঞ্জ উপজেলার লক্ষিখালী গ্রামের অমৃত মন্ডলের স্ত্রী। তিনি বাগেরহাট শহরে মা-বাবার সঙ্গে ভাড়া বাসায় থাকতেন। তার স্বামী অমৃত মন্ডল ধান কাটার শ্রমিক হিসেবে ১৫ দিন আগে চিতলমারীতে গেছেন।

    নিপা মন্ডলের মা বিথি বাছার বলেন, ভোর ৫টার দিকে মেয়ে নিপার প্রসববেদনা হলে ভ্যানযোগে আমরা তাকে পার্শ্ববর্তী মুক্তি ক্লিনিকে নেওয়ার জন্য রওনা হই। সেখানে পৌঁছানোর আগেই ভ্যানের ওপর কন্যা সন্তান প্রসব করে নিপা। পরে পুলিশ এসে আমাদের মুক্তি ক্লিনিকে নিয়ে যায়। তারা অনেক সহযোগিতা করেছেন। আমরা এখন ভাল আছি।

    বাগেরহাট মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মাহতাব উদ্দিন শিকদার বলেন, ৯৯৯ এ খবর পেয়ে এসআই কামরুল ইসলামের নেতৃত্বে একটি টিম ঘটনাস্থলে পৌঁছে নবজাতক ও তার মাকে মুক্তি ক্লিনিকে নিয়ে যায়। সেখানে চিকিৎসকদের সঙ্গে কথা সুচিকিৎসার ব্যবস্থা করেছে পুলিশ। এছাড়াও তাদেরকে পুলিশের পক্ষ থেকে পুষ্টিকর খাবার ও নগদ অর্থ সহায়তা করা হয়েছে।

    স্বপ্নচাষ/আরএস

    Facebook Comments

    বাংলাদেশ সময়: ৯:৩৩ অপরাহ্ণ | শুক্রবার, ০৮ মে ২০২০

    swapnochash24.com |

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১১২১৩১৪১৫
    ১৬১৭১৮১৯২০২১২২
    ২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
    ৩০৩১  

    সম্পাদক : এনায়েত করিম

    সম্পাদকীয় ও বাণিজ্যিক কার্যালয়: গুরুদাসপুর, নাটোর-৬৪৩০
    ফোন : ০১৫৫৮১৪৫৫২৪ email : swapnochash@gmail.com

    ©- 2021 স্বপ্নচাষ.কম কর্তৃক সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত।