• রবিবার ৯ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ ২৬শে বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

    শিরোনাম

    স্বপ্নচাষ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করতে ক্লিক করুন  

    রাজশাহীতে বেড়েছে কাঁচা আমের জুসের চাহিদা

    স্বপ্নচাষ প্রতিবেদক, রাজশাহী

    ২২ এপ্রিল ২০২১ ১১:১৮ অপরাহ্ণ

    রাজশাহীতে বেড়েছে কাঁচা আমের জুসের চাহিদা

    রাজশাহীতে মাঝারি থেকে তীব্র তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে। চলতি মৌসুমে এখনও কালবৈশাখী না হলেও খরতাপেই ঝরে পড়ছে কাঁচা আম। আমচাষিরা বাগানের ঝরে পড়া আম কুড়িয়ে বাজারে বিক্রি করছেন। গরমের তীব্রতায় কাঁচা আমের উপকারিতা ও ওষুধি গুণ থাকায় বাজারে এখন ঝরে পড়া কাঁচা আমের চাহিদা বেড়েছে।
    এমনিতেই বাজারে নতুন আসা মৌসুমি ফলের প্রতি ক্রেতাদের বাড়তি আকর্ষণ থাকে। এর ফলে দামও কিছুটা বেশি। অন্য সময় ২০/২৫ টাকা কেজি দরে বিক্রি হয় ঝরে পড়া কাঁচা আম। কিন্তু এখন মানভেদে কেজি প্রতি কাঁচা আম বিক্রি হচ্ছে ৪০ থেকে ৫০ টাকায়।
    ব্যবসায়ীরা বলছেন, রাজশাহীর বাজারগুলোতে সাধারণত এপ্রিল মাসের শুরু থেকে কাঁচা আম আসতে শুরু করে। এবারও তার ব্যতিক্রম ঘটেনি। তবে ঝড় না হওয়ায় এখন সেভাবে আমের সরবরাহ নেই। ঝড় হলে প্রচুর পরিমাণে আম বাজারে আসবে। তখন দাম আগের মতোই হয়ে যাবে।
    রাজশাহী মহানগরের শালবাগান বাজারে কাঁচা আম নিয়ে আসা হাসান আলী জানান, বাজারে যে জিনিসই নতুন আসুক তার প্রতি ক্রেতাদের চাহিদা একটু বেশি থাকে। কাঁচা আমের প্রতি এখন ক্রেতাদের বেশ চাহিদা রয়েছে। আর গরমের তীব্রতায় অনেকেই ইফতারে কাঁচা আমে জুস পছন্দ করেন। অনেকে আবার ডালের সাথে আম দিয়ে টক করে রান্না করেন। তাই সরবরাহের তুলনায় চাহিদা একটু বেশি। ঝড় হলে কাঁচা আমের সরবরাহ দ্বিগুণ হবে।
    মহানগরের সাহেব বাজার মাস্টারপাড়া এলাকার আম বিক্রেতা আমিনুল ইসলাম বলেন, বর্তমানে বাজারে কাঁচা আমের কেজি ৪০ থেকে ৫০ টাকা। বড় সাইজের আমগুলো ৫০ টাকা কেজি এবং ছোট আমগুলো ৪০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে। এর মধ্যে জুসের জন্য কাঁচা ফজলি আমের চাহিদাই বেশি। কারণ ফজলি আম কাঁচা অবস্থাতেও অনেক মিষ্টি। টক-মিষ্টি স্বাদের এই কাঁচা আমের জুস রাজশাহীর মানুষের অনেক বেশি প্রিয়। এছাড়া ল্যাংড়া, আশ্বিনা, আঁটি, গোপালভোগসহ অন্যান্য জাতের কাঁচা আমও ঝরে পড়ছে। বাজারে বিক্রিও হচ্ছে।
    কাঁচা আমে আছে প্রচুর শক্তি। সারাদিন রোজা থাকার পর ইফতারে কাঁচা আম খেলে বা আমের জুস পান করলে ঝিমুনি ও শরীরের সারাদিনের ক্লান্তি দূর হয়। এছাড়া কাঁচা আমের জুস হৃৎযন্ত্রের জন্য ভালো। কাঁচা আমকে হৃৎযন্ত্রবান্ধব বলা যেতে পারে। এতে আছে নিয়াসিন নামের বিশেষ উপাদান। এটি হৃৎরোগের ঝুঁকি কমায় এবং বাজে কোলস্টেরল স্তরকে কমাতে সাহায্য করে।

     

    Facebook Comments Box

    বাংলাদেশ সময়: ১১:১৮ অপরাহ্ণ | বৃহস্পতিবার, ২২ এপ্রিল ২০২১

    swapnochash24.com |

    advertisement

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    advertisement
    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
    ১০১১১২১৩১৪
    ১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
    ২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
    ২৯৩০৩১  
    advertisement

    সম্পাদক : এনায়েত করিম

    প্রধান কার্যালয় : ৫৩০ (২য় তলা), দড়িখরবোনা, উপশহর মোড়, রাজশাহী-৬২০২
    ফোন : ০১৫৫৮১৪৫৫২৪ email : swapnochash@gmail.com

    ©- 2021 স্বপ্নচাষ.কম কর্তৃক সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত।