• শনিবার ২৬শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ ১১ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

    শিরোনাম

    স্বপ্নচাষ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করতে ক্লিক করুন  

    মাঠে দুলছে সোনালী ধান, তবুও চিন্তায় রাজশাহীর কৃষকরা

    স্বপ্নচাষ ডেস্ক

    ০৪ মে ২০২০ ৫:৩৯ পূর্বাহ্ণ

    মাঠে দুলছে সোনালী ধান, তবুও চিন্তায় রাজশাহীর কৃষকরা

    রাজশাহীর মাঠে মাঠে সোনালী ধান দুলছে। চলতি বোরো মৌসুমে বোরো ধানের বাম্পার ফলন হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। তবে কৃষকদের চিন্তা অন্য জায়গায়। করোনা প্রাদুর্ভাবের কারণে সঠিক সময়ে ধান মাঠে তুলতে পারা নিয়ে চিন্তায় আছে কৃষকরা। বিশেষ করে শ্রমিক সংকট দিনে দিনে চরম আকার ধারণ করেছেন।

    যেসব, জেলায় ধান উৎপাদন হয় সেসব জায়গায় ধান কাটতে শ্রমিকরা বাহির থেকে আসেন। কিন্তু এবারে অবস্থা ভিন্ন। করোনার কারণে শ্রমিক পাওয়া যাচ্ছে না। যদিও বিভিন্ন জেলায় প্রশাসনের সহায়তায় ধান কাটার শ্রমিকদের সরকারি ব্যবস্থাপনায় বাইরে পাঠানো হচ্ছে। এক্ষেত্রে জেলায় যদি বাইরের শ্রমিক আসে তাহলে কোন সমস্যা থাকবে না। ইতিমধ্যেই রাজশাহী জেলার বিভিন্ন জায়গায় ধান কটা শুরু হয়েছে।

    কৃষি কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর রাজশাহীর উপ-পরিচালকের কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, রাজশাহী জেলার নয়টি উপজেলা ও রাজশাহী মহানগরীর দুটি থানা এলাকায় চলতি বোরো মৌসুমে ৬৩ হাজার ২৬৫ হেক্টর জমিতে বোরো ধান রোপনের লক্ষ্যমাত্রা ছিল। তবে লক্ষ্যমাত্রার চেয়েও বেশি জমিতে বোরো ধান রোপন করা হয়। আর প্রতি হেক্টর জমিতে ৪ দশমিক ২৫ মেট্রিক টন চাল উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা রয়েছে। আর ধান উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা রয়েছে ৪ লাখ ২৯ হাজার মেট্রিক টন। রাজশাহী জেলার নয়টি উপজেলার মধ্যে তানোর, গোদাগাড়ী, বাগমারা, মোহনপুর ও দুর্গাপুর উপজেলায় বেশি ধান চাষ হয়।

    করোনাকালীন সময় ছাড়াও এটি কালবৈশাখী মৌসুম। যার কারণে শ্রমিকদের মাথায় বাড়তি চিন্তা থেকেই যায়। পবা উপজেলার নওহাটা এলাকার কৃষক আব্দুর রহমান জানান, এ বছরের মতো ৪ বিঘা জমিতে বোরো রোপন করেছেন। এরমধ্যে ধান পাকতে শুরু করেছে। দ্রুত সময়ের মধ্যে ধান ঘরে উঠানো নিয়ে চিন্তায় আছেন তিনি।

    রাজশাহী কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর এর উপ-পরিচালক মো. শামছুল হক বলেন, এবছর লক্ষ্যমাত্রার চেয়েও বেশি জমিতে বোরো ধান আবাদ হয়েছে। জেলার তানোর উপজেলায় ধান কাটা শুরু হয়েছে। পর্যায়ক্রমে প্রত্যেকটি উপজেলায় ধান কাটা শুরু হবে। প্রতিকূল কোন পরিবেশ না হলে এ বছর বোরো ধানের বাম্পার ফলন সম্ভাবনা রয়েছে। কৃষকরা ধানের ন্যায্য দাম পাবে বলে আশা করছি। এজন্য সরকারের পক্ষ থেকে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। কৃষকরা যাতে ভালো ফলন ফলাতে পারেন এজন্যে প্রত্যেক বছরের ন্যায় চলতি মৌসুমেও কৃষি অফিসারের মাধ্যমে কৃষকদের বিভিন্ন পরামর্শ দেয়া হয়েছে। যাতে তারা ভালোভাবে ধান ফলাতে পারেন। আমিও বিভিন্ন এলাকায় গিয়ে কৃষকদের বিভিন্ন পরামর্শ দিয়েছি।

    স্বপ্নচাষ/আরএস

    Facebook Comments

    বাংলাদেশ সময়: ৫:৩৯ পূর্বাহ্ণ | সোমবার, ০৪ মে ২০২০

    swapnochash24.com |

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১
    ১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
    ১৯২০২১২২২৩২৪২৫
    ২৬২৭২৮২৯৩০  

    সম্পাদক : এনায়েত করিম

    সম্পাদকীয় ও বাণিজ্যিক কার্যালয়: গুরুদাসপুর, নাটোর-৬৪৩০
    ফোন : ০১৫৫৮১৪৫৫২৪ email : swapnochash@gmail.com

    ©- 2020 স্বপ্নচাষ.কম কর্তৃক সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত।