• বুধবার ২৭শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ ১১ই কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

    শিরোনাম

    স্বপ্নচাষ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করতে ক্লিক করুন  

    অসহায় মা-বাবার বিক্রি করা সন্তান ফিরিয়ে দিল পুলিশ

    স্বপ্নচাষ ডেস্ক

    ০২ মে ২০২০ ১০:৪৪ পূর্বাহ্ণ

    অসহায় মা-বাবার বিক্রি করা সন্তান ফিরিয়ে দিল পুলিশ

    সংগৃহীত ছবি

    অসহায় মায়ের পাশে দাঁড়িয়েছে গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশ। হাসপাতালের বিল পরিশোধ করতে না পেরে এক নবজাতক সন্তানকে বিক্রি করে দিয়েছিল শিশুটির বাবা-মা। এ ঘটনা জানতে পেরে পুলিশ কমিশনার নিজেই হাসপাতালের বিল পরিশোধের মাধ্যমে নবজাতক শিশুকে তার মায়ের কোলে ফিরিয়ে দেয়ার ব্যবস্থা করেছেন।

    গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, গর্ভবতী কেয়া খাতুন গত ২১ এপ্রিল গাজীপুর সিটি করপোরেশনের কোনাবাড়ি এলাকার সেন্ট্রাল মেডিকেল হাসপাতালে জরুরি বিভাগে ভর্তি হন। ওইদিনই সিজারের মাধ্যমে কেয়া খাতুনের কোল জুড়ে আসে ফুটফুটে ছেলে সন্তান এবং ১১ দিনে হাসপাতালের বিল আসে ৪৭ হাজার টাকা। কিন্তু দারিদ্রের নির্মম পরিহাসে কেয়া খাতুন ও তার স্বামী মো. শরীফ হাসপাতালের বিল দিতে না পারায় অন্যের কাছে নিজের সন্তানকে ২৫ হাজার টাকায় বিক্রি করে দিতে বাধ্য হন। সেই সন্তান বিক্রির টাকা দিয়ে হাসপাতালের বিল পরিশোধ করে মা তার নাড়িছেড়া ধনকে ছাড়াই গতকাল শুক্রবার নিজ বাড়ি গাজীপুর সিটি করপোরেশনের কাশিমপুরের এনায়েতপুর চলে যান।

    পরবর্তীতে বিষয়টি এডিশনাল আইজির (এসবি) মাধ্যমে গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের পুলিশ কমিশনারের নজরে আসলে তিনি দ্রুত ব্যবস্থা নিতে বলেন। গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের কমিশনার মো. আনোয়ার হোসেন নিজেই হাসপাতালের বিল পরিশোধের মাধ্যমে নবজাতক শিশুকে তার মায়ের কোলে ফিরিয়ে দেন। মা এবং ছেলে দুজনেই সুস্থ আছে।

    স্বপ্নচাষ/আরএস

    Facebook Comments Box

    বাংলাদেশ সময়: ১০:৪৪ পূর্বাহ্ণ | শনিবার, ০২ মে ২০২০

    swapnochash24.com |

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১১২১৩১৪১৫
    ১৬১৭১৮১৯২০২১২২
    ২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
    ৩০৩১  
    advertisement

    সম্পাদক : এনায়েত করিম

    প্রধান কার্যালয় : ৫৩০ (২য় তলা), দড়িখরবোনা, উপশহর মোড়, রাজশাহী-৬২০২
    ফোন : ০১৫৫৮১৪৫৫২৪ email : swapnochash@gmail.com

    ©- 2021 স্বপ্নচাষ.কম কর্তৃক সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত।