• মঙ্গলবার ১৮ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ ৪ঠা জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

    শিরোনাম

    স্বপ্নচাষ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করতে ক্লিক করুন  

    কৃষ্ণচূড়ার বর্ণিল রূপে সেজেছে প্রকৃতি

    স্বপ্নচাষ প্রতিবেদক, নাটোর

    ০৩ মে ২০২১ ১১:৩৩ পূর্বাহ্ণ

    কৃষ্ণচূড়ার বর্ণিল রূপে সেজেছে প্রকৃতি

    গ্রীষ্মের দাবদাহে পুড়ছে প্রকৃতি। আর এর মধ্যেই যেন আশীর্বাদ হয়ে দেখা দিয়েছে নানা রঙের ফুল। গ্রীষ্মের এই কাঠফাটা রোদ্দুরে কৃষ্ণচূড়ার বর্ণিল রূপে সেজেছে প্রকৃতি। দেখলেই মনে হয় কৃষ্ণচূড়ার রঙের আগুন জ্বলছে প্রকৃতিতে। এককথায় বলতে গেলে প্রকৃতিতে যেন আগুন লেগেছে কৃষ্ণচূড়ায়।

    ফুল ফোটার ঋতুর কথা উঠলেই প্রথমেই আসে ঋতুরাজ বসন্তের কথা। কিন্তু কৃষ্ণচূড়ার চোখ ধাঁধানো সৌন্দর্য যেন হার মানায় ঋতুরাজকেও। কৃষ্ণচূড়ার লাল আবির গ্রীষ্মকে দিয়েছে এক অন্য মাত্রা। ঋতুচক্রের আবর্তনে কৃষ্ণচূড়া তার মোহনীয় সৌন্দর্য নিয়ে আবারো হাজির হয়েছে প্রকৃতিতে। কৃষ্ণচূড়ার গাছ লাল লাল ফুলে ছেয়ে গেছে। যে দিকে চোখ যায় যেন সবুজের মাঝে লালের মূর্ছনা, প্রকৃতির এই অপরূপ সাজ দেখে চোখ জুড়িয়ে যায়।

    এমনটিই নাটোরের লালপুর উপজেলার আনাচে কানাচে যেখানে কৃষ্ণচূড়া গাছ রয়েছে সে জায়গা লাল রঙয়ের কৃষ্ণচূড়া ফুলে ছেয়ে গেছে। বৈশাখ এলেই যেনো প্রকৃতির ভালোবাসার কথা জানান দিতে লাল লাল হয়ে হেঁসে উঠে কৃষ্ণচূড়া ফুল।

    লালপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সামনে গিয়ে দেখা যায়, বৈশাখে কৃষ্ণচূড়া তার লাল আবির নিয়ে পাকা রাস্তার পাশে দাঁড়িয়ে আছে। দেখে মনে হচ্ছে ঋতুরাজ বসন্তের ভালোবাসা নিয়ে কৃষ্ণচূড়া তার সমস্ত রঙ প্রকৃতির মাঝে ছড়িয়ে দিয়েছে। এই কৃষ্ণচূড়া গাছটির দিকে তাকালেই তার মুগ্ধতায় যে কারোরই দৃষ্টি কেড়ে নেয়।

    সাধারণত বৈশাখ-জ্যৈষ্ঠ এ দুই মাস নিয়েই গ্রীষ্মকাল। গ্রীষ্মের ফুলের কথা বলতেই সবার চোখের সামনে ভেসে ওঠে কৃষ্ণচূড়ার কথা। শুধু ফলের জন্য গ্রীষ্মকাল এগিয়ে রয়েছে তা নয় ফুলের দিক থেকেও অন্যসব ঋতুর তুলনায় এগিয়ে রয়েছে গ্রীষ্মকাল। এ মৌসুমে কৃষ্ণচূড়ার লাল রঙের যে উন্মাদনা, এতই আবেদনময়ী যে চোখ ফেরানো অসম্ভব। কৃষ্ণচূড়ার ঐশ্বর্য, তার রঙের উজ্জ্বলতা অন্য ফুলকেও যেন হার মানিয়েছে। কৃষ্ণচূড়া দিয়ে যাচ্ছে অন্যরকম এক ভাললাগা।

    কৃষ্ণচূড়ার বৈজ্ঞানিক নাম ডেলোনিখ রেজিয়া। এটি ফাবাসিয়ি পরিবারের অন্তর্গত একটি বৃক্ষ যার গুলমোহর নামেও পরিচিতি রয়েছে। দেশে এপ্রিল মে মাসে এই ফুল ফোটে। বছরের অনান্য সময় এই ফুল বা গাছ সচারাচর চোখে না পড়লেও এপ্রিল মে মাসে যখনি গাছে নতুন পাতা বা ফুল ফোটা শুরু করে তখনি যেন পথচারির নজর কাড়ে মনমুগ্ধকর এই কৃষ্ণচূড়া। কৃষ্ণচূড়ার উচ্চতা খুব বেশি হয় না। সর্বোচ্চ ১১ থেকে ১২ মিটার পর্যন্ত লম্বা হয়। তবে এর শাখা পল্লব অনেক দূর পর্যন্ত ছড়ানো থাকে।

    উদ্ভিদ বিজ্ঞানীদের মতে, আবহাওয়া অনুকূলে থাকলে বাংলাদেশে কৃষ্ণচূড়া ফুল ফোটে এপ্রিল থেকে জুন পর্যন্ত। কুড়ি আসার কিছু দিনের মধ্যে পুরো গাছ ভরে যায় ফুলে ফুলে। কৃষ্ণচূড়া ফুল সাত আটটি পাপড়িযুক্ত গাঢ় লাল। ফুলের ভেতরের অংশ হালকা হলুদ ও রক্তিম হয়ে থাকে।

    প্রকৃতিতে এখন কৃষ্ণচূড়ার সুদিন বইছে। এ সুদিনের সুবাতাস ছুঁয়ে যাচ্ছে ফুল ও প্রকৃতিপ্রেমী মানুষের হৃদয়। পাখির ডানায়, হাওয়ায়-হাওয়ায় উড়ছে তার লাবণ্য। গাছে গাছে রক্তিম আভা নিয়ে জেগে থাকা কৃষ্ণচূড়া দৃষ্টি কাড়ছে সেইসব ফুলপ্রেমী মানুষদের, যারা শত ব্যস্ততার মধ্যেও অপেক্ষা করেন কৃষ্ণচূড়ার জন্য ।

    স্বাধীনতার রূপক ও চেতনার অর্থে ফুলটিকে ব্যবহার করেছেন অনেক কবি, সাহিত্যিক। শুধু কবি নয়, পথচারী থেকে শুরু করে সব শ্রেণি পেশার ফুলপ্রেমীদের আনন্দ ও মন কেড়েছে গ্রীষ্মের রাজা কৃষ্ণচূড়া।

    উপজেলার লালপুর, গোপালপুর, ওয়ালিয়া, সালামপুর এলাকা ছাড়াও বেশ কিছু পাড়া-মহল্লায় গেলেও কিছুক্ষণ পর পর দেখা মিলবে গ্রীষ্মের এ রাজার।
    ফুল ও প্রকৃতিপ্রেমীদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, গ্রীষ্মের শুরু থেকেই কৃষ্ণচূড়া ফুলটি প্রকৃতিতে নেমে আসতে শুরু করে। দূর থেকে কৃষ্ণচূড়া দেখলে শুধু মানুষের নয়, পাখিদেরও যেন মন ভরে ওঠে। তাই নানা জাতের পাখির আনাগোনাও থাকে গাছটিকে ঘিরে। শরীরে রক্তিম আভা মেখে কৃষ্ণচূড়া যেন সারাক্ষণ সবুজ বনভূমি, তৃণভূমিকে আলোকিত করে রেখেছে।

    কৃষ্ণচূড়ার দাপটে অন্যসব ফুলের রং যেন ম্লান হয়ে পড়েছে। কিছুদিনের জন্য অতিথি হয়ে আসা কৃষ্ণচূড়া এখন অনেক পাড়া-মহল্লায় তার আপন ঐশ্বর্যে অবস্থান করছে। রঙে, রূপে, উজ্জ্বলতা ও নমনীয়তায় কোনো কিছুই যেন কৃষ্ণচূড়ার সমকক্ষ নয়। কৃষ্ণচূড়ার তুলনা শুধু কৃষ্ণচূড়াই। কৃষ্ণচূড়ার সৌন্দর্যে একবারের জন্য হলেও দৃষ্টি আটকে যায় না কিংবা থমকে দাঁড়ায় না-এমনটা হতেই পারে না। এমনই তীব্র আকর্ষণ এই কৃষ্ণচূড়ার। চূড়ার মতোই উচ্চতায় অবস্থান করা এ বৃক্ষটির রূপ-লাবণ্য-নমনীয়তা আর সৌন্দর্যে ছোট-বড়, আবাল-বৃদ্ধ-বণিতা সবার কাছেই পরিচিত।

    স্বপ্নচাষ/আরসিআর

    Facebook Comments Box

    বাংলাদেশ সময়: ১১:৩৩ পূর্বাহ্ণ | সোমবার, ০৩ মে ২০২১

    swapnochash24.com |

    advertisement

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    advertisement
    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
    ১০১১১২১৩১৪
    ১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
    ২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
    ২৯৩০৩১  
    advertisement

    সম্পাদক : এনায়েত করিম

    প্রধান কার্যালয় : ৫৩০ (২য় তলা), দড়িখরবোনা, উপশহর মোড়, রাজশাহী-৬২০২
    ফোন : ০১৫৫৮১৪৫৫২৪ email : swapnochash@gmail.com

    ©- 2021 স্বপ্নচাষ.কম কর্তৃক সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত।